কাশ্মীরের আবহে ‘হাউডি মোদী’তে মঞ্চ মাতাবেন মোদী, ট্রাম্পের দেশে মেগা শো’য়ে উন্মাদনা

‘হাউডি মোদী’ পোস্টারে ছেয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস নগরী। হিউস্টনে এই মেগা ইভেন্ট ঘিরে টানটান উত্তেজনা। রবিবার হিউস্টনে একই মঞ্চে উপস্থিত থাকবেন মোদী ও ট্রাম্প। কাশ্মীরের ৩৭০ ধারা বিলোপের পর একই মঞ্চে মোদী-ট্রাম্পের উপস্থিতি বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ। কূটনৈতিক মহল মনে করছে, পাকিস্তানকে চাপে ফেলবে এই ‘হাউডি মোদী’ ইভেন্ট।
প্রধানমন্ত্রী মোদী আমেরিকার মাটিতে মেগা শো করতে চলেছেন। অনাবাসী ভারতীয়দের সামনে তিনি সভা করবেন। সেই অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন ট্রাম্প। পাকিস্তান যখন ভারতকে বিশ্বের দরবারে কোণঠাসা করতে উদ্যত, তখন ভারতের প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে আমেরিকার মাটিতে এই উন্মাদনা অন্যমাত্রা এনে দেবে। মোদীর আশা, মার্কিন মুলুকে যে হারে উন্মাদনা লেগেছে হাউডি মোদী নিয়ে, তা ভারতকে বিশাল মাইলেজ দেবে। ভারতের সঙ্গে বাণিজ্যিক সম্পর্ক আরও গাঢ় হবে আমেরিকার। এমনকী বডড কোন ঘোষণাও আসতে পারে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছ থেকে। যে উন্মাদনা ধরা পড়েছে সভায় উপস্থিতি এক লক্ষ ছাড়িয়ে যেতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। হাউডি মোদী’ ইভেন্টে অংশ নিতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে সফরে উড়ে গিয়েছেন শুক্রবার রাতে। এই সফরের আগে তিনি বলেন, আমার এই সফর ভারতকে নতুন শক্তি জোগাতে সহায়তা করবে। আমেরিকার সঙ্গে ভারতের সম্পর্ক বাড়িয়ে তুলবে এবং আমাকে একজন বিশ্বনেতা হিসাবে উপস্থাপন করবে। মোদী মনে করেন, আমেরিকার মতো দেশে এই ধরনের ইভেন্টে অংশ নেওয়া যেমন দেশের পক্ষে অত্যন্ত গর্বের, তেমনই তাঁর ব্যক্তিগত লাভও। এই সফর দেশকে সুযোগ-সুবিধা পাইয়ে দেবে অনেক। আমেরিকার একজন নির্ভরযোগ্য অংশীদার করে তুলবে। একইসঙ্গে বিশ্ব নেতা হিসাবে তাঁর পরিচায়ক হবে। তিনি বলেন, শিক্ষা, দক্ষতা, গবেষণা, প্রযুক্তি ও উদ্ভাবনের ক্ষেত্রে অংশীদারিত্বের সমৃদ্ধ সম্ভাবনা, অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি এবং জাতীয় সুরক্ষায় ভারতের প্রাপ্তি ঘটাবে এই সফর। মোদীর কথায়, আমেরিকা আমাদের জাতীয় উন্নয়নের জন্য এক গুরুত্বপূর্ণ অংশীদার হয়ে উঠবে এই সফরে। আমরা একসঙ্গে কাজ করে আরও শান্তিপূর্ণ, স্থিতিশীল, সুরক্ষিত, টেকসই এবং সমৃদ্ধ বিশ্ব গড়তে পারব বলে বিশ্বাস।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *