করোনা মোকাবিলায় মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে সাহায্য তৃণমূলের নেতাদের

তিমিরকান্তি পতি, বাঁকুড়া: করোনা আতঙ্কে সারাদেশ। অতি সতর্কতা হিসেবে দেশজুড়ে চলছে ‘লকডাউন’। দেশের অর্থনৈতিক অবস্থাও এই মুহুর্তে শোচনীয়। করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে রাজ্যের তরফে গঠিত ‘ওয়েস্ট বেঙ্গল স্টেট এমার্জেন্সি রিলিফ ফাণ্ডে’ অসংখ্য মানুষ তাঁদের আর্থিক সাহায্য পৌঁছে দিচ্ছেন।

শুক্রবার বাঁকুড়া জেলাশাসকের দফতরে গিয়ে সংশ্লিষ্ট রিলিফ ফাণ্ডে তৃণমূল নেতা ও খাতড়া পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি জয়ন্ত মিত্র ৫ লক্ষ, দলের খাতড়া টাউন যুব সভাপতি সুব্রত দে ৫ লক্ষ টাকা জেলাশাসক অরুণ প্রসাদের হাতে তুলে দেন।

একই সঙ্গে এদিন জেলা পরিষদের সভাধিপতি মৃত্যুঞ্জয় মুর্ম্মু ও জেলা পরিষদের পূর্ত কর্মাধ্যক্ষ শিবাজী বন্দ্যোপাধ্যায়ের তরফেও আড়াই লক্ষ টাকা করে জেলাশাসকের হাতে তুলে দেওয়া হয়। পরে তৃণমূল নেতা ও খাতড়া পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি জয়ন্ত মিত্র বলেন, আমাদের সংবেদনশীল মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এই করোনা ভাইরাস সংক্রান্ত অতিমারীর সময়ে কেন্দ্রের তরফে কোন সহযোগীতা না পেয়ে আমাদের সকলের কাছে আর্থিক সহযোগীতা চেয়েছিলেন।

মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী এক দিকে অসুররুপী ‘করোনা’ ভাইরাস ঠেকাতে পথে নেমেছেন, অন্যদিকে আমাদের সবার ‘মা’ হিসেবে আমাদের প্রতিনিয়ত রক্ষা করে চলেছেন। এই চরম অর্থনৈতিক সমস্যার সময়ে আমি ব্যক্তিগত সঞ্চয় থেকে পাঁচ লক্ষ ও খাতড়া তৃণমূল টাউন যুব সভাপতি সুব্রত দে পাঁচ লক্ষ টাকা জেলাশাসকের মাধ্যমে জমা দিয়েছি। একইভাবে সংশ্লেষ্ট সকলের কাছে বর্তমান পরিস্থিতিতে আর্থিক সাহায্য নিয়ে পাশে দাঁড়ানোর আবেদন জানান তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *